,

ধর্ষণের শিকার ১১ বছরের শিশুটি আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা

আকাশবার্তা ডেস্ক :

যশোরের মণিরামপুরে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা ১১ বছরের সেই শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুটি বর্তমানে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা। বুধবার হঠাৎ অসুস্থ হলে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উপজেলা পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের সহকারী কর্মকর্তা কিবরিয়া শিশুটিকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। 

যশোর জেনারেল হাসপাতালের গাইনি বিভাগের চিকিৎসক নিলুফার ইয়াসমিন জানান, অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটি এখনও শিশু। এ কারণে তার অবস্থা বেশ ক্রিটিক্যাল। এজন্য তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। কিন্তু অর্থের অভাবে স্বজনরা তাকে নিয়ে যেতে পারছে না। আগামী ১৭ অক্টোবর ডেলিভারির ডেট রয়েছে। এর আগেও হতে পারে। কবে মেয়েটির বয়স কম হওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবে সন্তান প্রসব হওয়ার সম্ভবনা খুবই কম।  

ওই শিশুর স্বজনরা জানান, পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের উপজেলার সহকারী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করে কিবরিয়া মণিরামপুরে একটি ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতেন। তার বাড়িতে কাজের মেয়ে হিসেবে ওই শিশুটি থাকত। চলতি বছরের শুরু থেকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে তাকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করেন কিবরিয়া। এতে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি জানতে পেরে মেয়েটির স্বজনরা আইনের আশ্রয় নেন। তখন পুলিশ কিবরিয়াকে গ্রেপ্তার করে।

বর্তমানে কিবরিয়া কারাগারে আছেন। আর মামলাটি বিচারাধীন।এদিকে মামলা বিচারাধীন থাকায় শিশুটির গর্ভপাত ঘটানো যায়নি বলে জানিয়েছে তার পরিবার। ফলে জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে ভুক্তভোগী শিশুটি। 

স্বজনরাও রয়েছেন খুব চিন্তায়। একদিকে অর্থের অভাব, অন্যদিকে অনাগত শিশুর বাবার পরিচয় আর সমাজের তিরষ্কার শান্তি কেড়ে নিয়েছে পরিবারটির।

     এই বিভাগের আরও সংবাদ

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« আগষ্ট   অক্টোবর »
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
}