,

চন্দ্রগঞ্জে গৃহবধূ অপহরণ মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূ অপহরণ মামলার প্রধান আসামি আব্দুল কাদেরকে গ্রেপ্তার করেছে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ জানায়, চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন শিবপুর গ্রামের মাঝি উল্যার বাড়ির সামনে দোকানের পাশে আসামি আব্দুল কাদের ওরফে মাটি কাদের ঘোরাফেরা করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসেন। আসামি কাদের (৩৫) পার্শ্ববর্তী দেওপাড়া গ্রামের যাদু সাহা বাড়ির মৃত আলী আকবরের পুত্র।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন হাজিরপাড়া ইউপির শিবপুর গ্রামের সামছুল আলমের স্ত্রী গৃহবধূ ফেরদৌস আক্তারের (৩৫) সাথে আসামি আব্দুল কাদেরের লেনদেন সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সামাজিকভাবে বেশ কয়েকবার সালিশ বৈঠকও হয়। বৈঠকে আসামি আব্দুল কাদের ওরফে মাটি কাদেরকে সতর্ক করে ওই বাড়িতে না যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। এরপরও কাদের তার কু-মতলব হাসিল করতে প্রায় সময় পথেঘাটে ওই গৃহবধূকে উত্ত্যক্ত করে কুপ্রস্তাব দেয়।

এতে সাড়া না দেওয়ায় গত ২৯ জুলাই বেলা ১১টার দিকে বাড়িতে একা পেয়ে কাদেরসহ অন্যান্য আসামিরা জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে তুলে গৃহবধূ ফেরদৌস আক্তারকে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে যায়। এ সময় গৃহবধূর দুই শিশু ছেলে মেয়ে স্কুলে ছিল।

গ্রেপ্তারকৃত প্রধান আসামি আব্দুল কাদেরকে শুক্রবার দুপুরে থানা থেকে আদালতে নেওয়ার সময় তোলা ছবি।

খবর পেয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনার ৩ ঘন্টা পর ওই গৃহবধূকে পার্শ্ববর্তী দক্ষিণ জয়পুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করেন। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কাদেরসহ তার সাঙ্গপাঙ্গরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় অপহৃত গৃহবধূ ফেরদৌস আক্তার নিজে বাদি হয়ে আব্দুল কাদেরকে প্রধান আসামি করে সুজন (৩০), ইসমাইল (২৮) ও মনির হোসেনসহ (৪০) চারজনকে আসামি করে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোঃ মজিবুর রহমান জানান, দায়েরকৃত মামলায় প্রধান আসামি কাদের এবং এরআগে মনির নামে আরো এক আসামিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।

     এই বিভাগের আরও সংবাদ

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
}