,

প্রতিকী ছবি।

তরুণীর লাথি খেয়ে পালালো ৩ ধর্ষক

আকাশবার্তা ডেস্ক :

এক বন্ধু পাহারা দেয় আর দুই বন্ধু মিলে ধর্ষণ করে তরুণীকে। পরে পাহারাদার বন্ধু ধর্ষণ করতে গেলে ধর্ষণের শিকার তরুণী তাকে লাথি মেরে ফেলে দিয়ে চিৎকার শুরু করে। পরে তিন ধর্ষক পালিয়ে যায়।

রাজধানীর হাজারীবাগের এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে  আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন, রনি (২১), নাজির (২০) ও সাগর (২১)।

হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকরাম আলী মিয়া জানান, ১৮ বছরের এক তরুণীর সঙ্গে রনি নামে এক ছেলের পরিচয়ের সূত্রে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই তরুণী হাজারীবাগ এলাকার একটি কারখানায় চাকরি করেন।

তিনি আরও জানান, গতকাল শুক্রবার রাত নয়টার দিকে রনি মেয়েটিকে হাজারীবাগ বালুরমাঠ কামাল সদর রোড এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে তরুণীকে ধর্ষণ করে। এরপরেই রনির সঙ্গে থাকা তার বন্ধু নাজির তাকে ধর্ষণ করেন।

দুই বন্ধু ধর্ষণের পর পাহারায় থাকা আরেক বন্ধু সাগর ধর্ষণ করতে গেলে মেয়েটির সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয়। মেয়েটি সাগরকে লাথি মেরে ফেলে দেয়। এরই একপর্যায়ে সাগর মেয়েটিকে ধাক্কা দিয়ে ফ্লোরে ফেলে দেয়। এর পরপরই তিনজন ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়।

ওই তরুণীর কান্না শুনে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে যায় এবং থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে। তরুণীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাতেই অভিযান চালিয়ে তিন বন্ধুকে আটক করা হয়।  

আটক রনি ও নজির ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে উল্লেখ করে ওসি জানান, সাগর বলেছে সে পাহারায় ছিল আর রনি ও নজির ধর্ষণ করেছে। নির্যাতিতা তরুণী নিজেই বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। ওই তরুণীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

     এই বিভাগের আরও সংবাদ

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« অক্টোবর    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  
}